০৭ ডিসেম্বর ২০১৯

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন, প্রেমিকসহ পরিবার লাপাত্তা

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন, প্রেমিকসহ পরিবার লাপাত্তা - ছবি : নয়া দিগন্ত

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউপির ছালাখুর গ্রামে শফিকুল ইসলাম নামে এক প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছে জেসমিন আক্তার। শুক্রবার সকাল থেকে রোববার পর্যন্ত এক টানা ৩ দিন থেকে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করছে প্রেমিকা। এদিকে ওই মেয়ে বাড়িতে আসার খবর পেয়ে ছেলের মা-বাবা সহ পরিবারের লোকজন বাড়িতে তালা লাগিয়ে লাপাত্তা। ঘটনার প্রথম দিন পুলিশ ও স্থানীয় চেয়ারম্যান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এর সু-ব্যবস্থা করার আস্বাস দেন। রোববার পযর্ন্ত ৩ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এলাকার লোকজন মেয়েটিকে বর্তমানে নিরাপত্তা দিচ্ছে। ওই মেয়ে ও স্থানীয়দের দাবি, মেয়েটিকে বিয়ে দিতে হবে। গ্রামবাসীদের সহযোগীতায় বাড়ির গেটের সামনেই ছাউনি দিয়ে ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার ইয়াসিন আলীর মেয়ে জেসমিন আক্তার (১৯) পাঁচবিবি উপজেলার ছালাখুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে শফিকুল ইসলাম( ২০ ) এর সাথে ঢাকায় একটি গার্মেন্টেসে চাকরী করার সময় দু’জনের পরিচয় হয়। সেই থেকে ফোনালাপ অতঃপর প্রেম।

প্রেমিকা জেসমিন আক্তার জানান, প্রায় এক বছর ধরে আমার আর শফিকুলের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। আমাকে বিয়ে করবে বলে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক ছাড়াও আমার কাছ থেকে প্রায় ১ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এখন আমি বিয়ে করতে বললে সে ঢাকা থেকে পালিয়ে জয়পুরহাট আসে । আমি এখন তাকে বিয়ে করতে চাই। বিয়ে না করলে আমার মরণ ছাড়া কোন উপায় নাই।

এঘটনায় রবিবার সকালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন মন্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগীতায় ন্যায় বিচারের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুনসুর রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে তবে এখন পযর্ন্ত থানায় কোন অভিযোগ আসেনি, থানায় অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরো সংবাদ