১০ ডিসেম্বর ২০১৯

আ’লীগের সম্মেলনে পেঁয়াজ নিয়ে ক্ষোভ 

আ’লীগের সম্মেলনে পেঁয়াজ নিয়ে ক্ষোভ  - নয়া দিগন্ত

আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, যারা বিতর্কিত তারা দলের কোন পদে যেতে পারবে না, সরকার এব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। কারণ নেতাকর্মীদের নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে দলের ক্ষতি হয়। তাই মানুষের সাথে ভালো আচরণ করবে এমন নেতা নির্বাচন করতে হবে। ভালো নেতা হলে বগুড়া সদরেও নৌকা জিতবে। তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে দেশবিরোধী চুক্তি করে আ’লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে। তারা এভাবে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চেষ্টা করে। কিন্তু মানুষ আর তাদের কথা বিশ্বাস করে না।

শনিবার শহরের শহীদ খোকন পার্কে বগুড়া শহর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র লিটন এসব কথা বলেন।

সম্মেলনে অন্য বক্তারা বলেন, সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে একটি মহল পেঁয়াজের বাজার অস্থির করেছে। তাই এদের চিহ্নিত করতে হবে। যারা গুদামে মজুদ করে নষ্ট করছে কিন্তু বাজারে নিচ্ছে না তারা সরকারে বিুরদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনতে হবে।

সম্মেলনের প্রধান বক্তা জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু বলেন, আ’লীগ যখনই ক্ষমতায় যায় তখনই পশ্চিমা শাসকগোষ্ঠি বিনাসের চেষ্টা করে। তিনি বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, লজ্জা থাকলে বিমানবন্দর সহ অন্যান্য উন্নয়নের দাবী উঠতো না। কারণ তারা দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থেকেও উন্নয়ন করেনি।

৬ বছর পর অনুষ্ঠিত এ সম্মেলন উদ্বোধন করেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডাক্তার মকবুল হোসেন । বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা আ’লীগের সহসভাপতি মকবুল হোসেন মুকুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, টি জামান নিকেতা, মন্জুরুল আলম মোহন, সাংগাঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কুমার রায়, আসাদুর রহমান দুলু। সভায় সাংগাঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন নূরুল আমিন লিডার ও শোক প্রস্তাব পাঠ করেন অ্যাডোনিস তালুকদার বাবু । সুলতান মাহমুদ খান রনি ও আল রাজী জুয়েলের পরিচালনায় আরো বক্তব্য দেন জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুস সালাম, যুবলীগ সভাপতি শুভাশিষ পোদ্দার লিটন, কৃষকলীগ সভাপতি আলমগীর হোসেন বাদশা, যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী লাইজিন আরা লিনা, ছাত্রলীগ সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস ।

এর আগে পৌরশাখার ২১টি ওয়ার্ড থেকে মিছিল নিয়ে সম্মেলনে যোগ দেন নেতাকর্মীরা।

সম্মেলনে সভাপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান আহ্বায়ক রফি নেওয়াজ খান রবিন। সাধারণ সম্পাদক পদে চারজন প্রতিদ্বন্দিতা করেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন শেষ হয়নি।


আরো সংবাদ