০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

অধ্যক্ষকে পুকুরের ফেলার ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫ কর্মী গ্রেফতার

রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিনকে লাঞ্ছিত ও ধাক্কা দিয়ে পুকুরের ফেলে দেয়ার ঘটনায় ছাত্রলীগের পাঁচ কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস এ তথ্য নিশ্চিত করেন। অধ্যক্ষের দায়ের করা মামলায় সোমবার দিবাগত রাতে রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ বেলপুকুর থানার বিসমিল্লাহ পেট্রলপাম্প সংলগ্ন মোড়সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসামিদের গ্রেফতার করা হয় বলে জানান তিনি।

গ্রেফতারকৃত ছাত্রলীগ কর্মীরা হল- পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের সদ্য বহিষ্কৃত যুগ্ম সম্পাদক কামাল হোসেন সৌরভ, মুরাদ, শান্ত, সালমান ওরফে টনি এবং রায়হানুল হাসান হাসিব।

আরএমপি মুখপাত্র কুদ্দুস জানান, রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ ও বেলপুকুর থানা অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। এনিয়ে অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিনের করা মামলায় ১৭ জনকে গ্রেফতার করা হলো। অন্যদেরও গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, পরীক্ষায় ফেল ও ক্লাসে অনুপস্থিত থাকা পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত যুগ্ম সম্পাদক সৌরভকে ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ দিতে গত ২ নভেম্বর সকালে অধ্যক্ষকে চাপ দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে কথা কাটকাটির একপর্যায়ে অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিতের পর টেনেহিঁচড়ে ক্যাম্পাসের ভেতরের একটি পুকুরের পানিতে ফেলে দেয়া হয়।

এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই সাতজনের নাম উল্লেখসহ ৫৭ জনকে আসামি করে মহানগরীর চন্দ্রিমা থানায় মামলা করেন অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন। সূত্র : ইউএনবি।


আরো সংবাদ