১৯ মে ২০১৯

 জাল টাকা তৈরির কারখানা সন্ধান, নেপথ্যে সাবেক সেনা সদস্য

রংপুর মহানগরীর জুগিটারীতে ভারতীয় ও বাংলাদেশী জাল নোট তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে মেট্রোপলিটন পুলিশ। বুধবার দুপুরে ওই কারখানা থেকে বিপুল পরিমান জালনোট, তৈরির সরঞ্জামাদিসহ তৈরিকারক আলী হোসেন (৪৫) নামের এক সাবেক সেনা সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সন্ধায় রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরপিএমপি) এর কোতয়ালি থানায় এ বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল আলীম মাহমুদ।

এসময় তিনি বলেন, রমজান ও ঈদের কেনাকাটাকে ঘিরে জাল নোট সরবরাহকারী প্রতারক চক্রের সদস্যরা উত্তরাঞ্চলে সক্রিয় উঠে হয়েছে। এই চক্রের সক্রিয় সদস্য ও জাল নোট তৈরিকারক সিন্ডিকেট প্রধান আলী হোসেন (৪৫) দীর্ঘদিন থেকে নগরীর জুগিরাটীতে মেশিন বসিয়ে জাল নোট তৈরি করছিল। বুধবার দুপুরে আমরা আলী হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালাই।

এসময় তার শয়ন কক্ষে থাকা পুরোনো একটি লোহার ট্যাংক থেকে ১৬ লাখ দশ হাজার টাকার ভারতীয় ও বাংলাদেশী জাল নোট উদ্ধার করা হয়। এরমধ্যে ৫০০ ও ১ হাজার টাকার বাংলাদেশী জাল নোট রয়েছে সাড়ে ১১ লাখ বাকিগুলো ভারতীয় ৪ লাখ ৬০ হাজার টাকা রয়েছে।

আরপিএমপি কমিশনার জানান, আলী হোসেনের বাড়ি কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার টাপুরচর গ্রামে। সেনাবাহিনীর সদস্য হিসেবে অবসর নিয়ে সে জাল নোট তৈরির করে আসছিল। এর মাধ্যমে সে রাষ্ট্রের সাথে প্রতারণা করেছে। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দেয়া হয়েছে।


আরো সংবাদ