২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সৈয়দপুরে বিয়ের ২৪ ঘন্টার মধ্যেই যুবকের পুরুষাঙ্গ কর্তন

বিয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পুরুষাঙ্গ হারিয়েছেন সবুজ - ছবি : নয়া দিগন্ত

নীলফামারীর সৈয়দপুরে অজ্ঞান অবস্থায় নুর আলম সবুজ নামে নববিবাহিত এক যুবককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে নিজ বাড়ি থেকে প্রায় ৫শ’ গজ দূরে নির্জন স্থান থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

দুর্বৃত্তরা তার পুরুষাঙ্গের উপরি অংশ কেটে নিয়েছে।

পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. এস এম রবিউল ইসলাম উপস্থিত পুলিশ ও স্বজনদের জানান, যুবকের পুরুষাঙ্গ কর্তন রয়েছে। প্রচুর রক্ষক্ষরণ হওয়ায় রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ কারণে তিনি তাৎক্ষণিক উন্নত চিকিৎসার জন্য রোগীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

নুর আলম সবুজ সৈয়দপুরের কামারপুুকুর ইউনিয়নের ধলাগাছ পশ্চিমপাড়ার মোহাম্মদ আলীর একমাত্র পুত্র এবং ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজের জুনিয়র কেয়ারটেকার।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ওই যুবক একই ইউনিয়নের এক মেয়েকে ১৮ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন। ওই বিয়েতে যুবকটির পরিবারের সম্মতি ছিল না। কিন্তু মেয়েটির সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক থাকায় অভিভাবকদের অসম্মতিতেই বিয়ে করেন তিনি। এসময় সবুজের সাথে তার বন্ধু অপু ও কালা উপস্থিত ছিল।

পরের দিন সন্ধ্যায় ওই দুই বন্ধুকে নিয়ে সবুজ তার বোনের বাড়িতে রাতের খাবার খেয়ে শ্বশুর বাড়িতে যান। এসময় তার বাড়ির উঠান থেকেই কে বা কারা তাকে অপরহণ করে। পরে রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ির প্রায় ৫শ’ গজ দূরে পুরুষাঙ্গ কর্তন করে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। বিয়ের মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে এ ঘটনায় নারীঘটিত কোনো কারণ রয়েছে বলে ধারণা করছে সবুজের পরিবার।

এদিকে, পুলিশ ঘটনার পর সবুজের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

মেয়েটির বাবা জানান, সবুজ সুস্থ হয়ে এলই প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে এবং ঘটনার সাথে কারা জড়িত তাও উদঘাটিত হবে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার চাই।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসনাত খান জানান, ঘটনার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ তৎপর রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় কেউই কোনো অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ