১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

কফি টেবিল

-

বসার ঘর সাজাতে একটি কফি টেবিল অপরিহার্য। কফি টেবিল না থাকলে বসার ঘর একদমই অপরিপূর্ণ। কিন্তু মনের মতো নকশার কফি টেবিল খুঁজে পাওয়াই কঠিন। তাই আজ থাকছে অন্যরকম কিছু কফি টেবিলের নকশা, অনায়াসেই বানিয়ে নিতে পারেন আপনার বসার ঘরের জন্য।
স্কোয়ার গ্লাস কফি টেবিল : এই টেবিলে দু’টি লেয়ার বা তলা থাকে। ওপরেরটি কাচের, নিচেরটি কাঠের। ঠিক মাঝ বরাবর লম্বা একটি কাঠের থাম, যেটি মেঝে থেকে ওপরের কাচের লেয়ারটি ভেদ করে গেছে। মূলত এটির মাধ্যমেই টেবিলটি দাঁড়িয়ে থাকে। এই টেবিলের দুই লেয়ারেই শোপিস দিয়ে সাজানো যায়। চাইলে নিচের তলায় বই বা ম্যাগাজিন রাখা যায় অথবা খুব সিমপল লুক চাইলে খালিও রাখা যায়।

স্টিল কফি টেবিল :
সবার নজর কেড়ে নেয়ার ক্ষমতা রাখে এই কফি টেবিলটি। এটির কাঠামো সৃষ্টি করা হয়েছে স্টিল দিয়ে কিন্তু ওপরের অংশটি কাচের। টেবিলটির দুই পাশে ঝকঝকে স্টিলের পাত দিয়ে সৃষ্টি কাঠামো যার সাহায্যে টেবিলটি স্থিতিশীলতা পায়। এই টেবিলটি সাজাতে বেশি শোপিস দরকার নেই। একটি ছোট গাছই যথেষ্ট।
কাঠ দিয়ে তৈরি রুচিশীল ছিমছাম একটি টেবিল। কোনো আলাদা কারুকারজের দরকার হয়নি এই টেবিলটিকে সুন্দর বানাতে। এটি এমনিতেই এত সুন্দর যে বাড়িতে আসা অতিথির নজর কাড়তে কোনোই সমস্যা হবে না টেবিলটির। কাঠের এই গোল টেবিলটির ওপরে যেমন শোপিস দিয়ে সাজাতে পারবেন, নিচের তাকে রাখতে পারবেন বই, ম্যাগাজিন বা শোপিস।
আয়তাকার এই টেবিলটি দেখতে সাদা রঙের, শুধু দুই পাশের কাঠামোটি কাঠের রঙ। লম্বালম্বি দুই পাশে দু’টি ড্রয়ার। টেবিলটি সাদা, কিন্তু সাদামাটা নয়। যেকোনো বসার ঘরে রুচির ছোঁয়া এনে দেবে এই টেবিলটি। বাড়তি পাওনা হিসেবে আছে দু’টি ড্রয়ার যাতে অনেক জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখা যেতে পারে।
দুই লেয়ার বা দুই তলাবিশিষ্ট এই টেবিলটির দু’টি লেয়ারই কাচের। টেবিলটির কাঠামো অনেকটা পেঁচানো, অনেকটা ইংরেজি অক্ষর জি-এর মতো। নিচের লেয়ারে বই, ম্যাগাজিন বা শোপিস দিয়ে সাজানো যেতে পারে। আর ওপরের লেয়ারে ছোট্ট একটি গাছ রাখলেই যথেষ্ট।
বর্গাকৃতির এই কফি টেবিলে লুকানো আছে চারটি ড্রয়ার। লুকানো ড্রয়ারের সুবিধা হলো ভেতরে অনেক জিনিসপত্র রাখা যাবে, কেউ দেখবেও না, আর জিনিসপত্র রাখার ড্রয়ার পাওয়ার জন্য স্টাইল বিসর্জনও দিতে হবে না। ড্রয়ার বন্ধ করে দিলে কেউ আঁচ করতেই পারবে না যে, এ টেবিলে লুকনো ড্রয়ার থাকা সম্ভব।


আরো সংবাদ