১৪ নভেম্বর ২০১৯

ড্র ম্যাচে উজ্জ্বল মাহমুদুল্লাহ

ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার হাতে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ : নয়া দিগন্ত -

প্রথম ইনিংসের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এক ইনিংসে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে হাঁকিয়েছেন হাফ সেঞ্চুরি। অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে মাহমুদুল্লাহ পেয়েছেন ম্যাচসেরার পুরস্কার। ব্যক্তিগত অর্জনে ভরপুর হলেও মিরপুর শেরেবাংলায় ঢাকা মেট্রো ও চট্টগ্রাম বিভাগের ম্যাচটি হয়েছে ড্র।
২০১৫ সালের পর এবারই প্রথম জাতীয় লিগ খেলতে নেমেছিলেন মাহমুদুল্লাহ। মাঠে নেমেই রাখলেন অবদান। দলকে দিলেন ড্রয়ের স্বাদ। তবে গতকাল শেষ দিনের শুরুতে সবার চোখ ছিল ঢাকা মেট্রোর দুই ব্যাটসম্যান শহিদুল ইসলাম ও জাবিদ হোসেনের ওপর। উভয়েই ছিলেন সেঞ্চুরির পথে। কিন্তু দুইজনই হতাশ করেন। আগের দিনের সাথে মাত্র ১ রান যোগ করে শহিদুল আউট হন ৮৩ রানে। জাবিদ হোসেন ৪ রান যোগ করে ৮৫ রানে ইনিংস শেষ করেন। শেষ ৩ উইকেটে ঢাকা মেট্রো চতুর্থ দিনে যোগ করে মাত্র ৫ রান। চট্টগ্রামের ২৯০ রানের জবাবে ৩৫৪ রানে শেষ হয় ঢাকা মেট্রোর ইনিংস।
৬৪ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাটিংয়ে নেমে চট্টগ্রাম বিভাগের দুই ওপেনার দলকে ভালো সূচনা এনে দেন। এবার তামিম ইকবালের সঙ্গী পিনাক ঘোষ ১০২ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন। তামিম উইকেটের চার পাশে শট খেলেছেন আত্মবিশ্বাস নিয়ে। আরেক বাঁহাতি পিনাকও ছিলেন দুর্দান্ত। দ্রুতই তুলে নেন প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে পঞ্চম হাফ সেঞ্চুরি। কিন্তু ছোট্ট এক স্পেলে মাহমুদুল্লাহ দ্রুত ৩ উইকেট পান। ৫৭ রানে পিনাক এলবিডব্লিউ। পরের বলে মুমিনুল হক ক্যাচ দেন আল-আমিনের হাতে। মাহমুদুল্লাহকে হ্যাটট্রিক বঞ্চিত করেন তাসামুল হক। তবে এক ওভার পর ফিরে এসে তামিমকে ফিরিয়ে তৃতীয় সাফল্য পান ডান হাতি অব স্পিনার। ১১২ বলে ৪৬ রানে তামিম এলবিডব্লিউ হন। প্রথম ইনিংসেও তাকে ফিরিয়েছিলেন মাহমুদুল্লাহ। নিজের দ্বিতীয় স্পেলে বোলিংয়ে ফিরে আরাফাত সানী নেন মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের উইকেট।
এরপর চট্টগ্রামের ইনিংস আকড়ে ধরেন তাসামুল ও মাসুম খান। দুইজনই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। তাদের ব্যাটে ড্রয়ের পথে এগিয়ে যায় ম্যাচ। হাফ সেঞ্চুরির পর তাসামুল ৫৩ রানে ফিরলেও মাসুম খান ড্রয়ের আগ পর্যন্ত টিকে ছিলেন ৬১ রানে। নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা আগে দুই দল ড্র মেনে নেয়। ৫ উইকেট হারিয়ে চট্টগ্রাম দ্বিতীয় ইনিংসে তোলে ২২৭ রান।
১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় রাউন্ড। ফতুল্লায় খেলবে বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগ। বগুড়ায় মাঠে নামবে ঢাকা মেট্রো ও সিলেট।
তাইজুলের পাঁচ উইকেট নেয়ার ম্যাচ ড্র
এ দিকে ফতুল্লায় অপর ম্যাচে তাইজুল ইসলামের ৫ উইকেটের পর নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২৫৪ রানে অলআউট হয়েছে ঢাকা বিভাগ। গতকাল দুই উইকেটের পর আজ আরো তিনটি উইকেট নেন তিনি। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে এ নিয়ে ২১তম বারের মতো পাঁচ উইকেট নিলেন বাঁহাতি এ স্পিনার। হলে কী হবে রাজশাহীর বিপক্ষে ম্যাচটি যে হলো ড্র।
প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেয়া তাইজুল ইসলাম এবার নিলেন পাঁচটি। এরপরও তাইবুর রহমানের জোড়া ফিফটিতে চালকের আসনে ছিল ঢাকা। দ্রুত ৩ উইকেট নিয়ে জমিয়ে দিয়েছিল ম্যাচ। শেষ পর্যন্ত জহুরুলের দৃঢ়তায় ম্যাচ বাঁচিয়েছে রাজশাহী। জয়ের জন্য প্রথম স্তরের ম্যাচে ৭৭ ওভারে ২৯৮ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল রাজশাহী। বেশ কঠিন সেই লক্ষ্য তাড়ার চেষ্টায় যায়নি দলটি।
রাজশাহীর ব্যাটিং ভরসা মুশফিকুর রহীমকে বিদায় করার পর সাব্বির রহমানকে শূন্য রানে ফিরিয়ে দেন অধিনায়ক শুভাগত হোম চৌধুরী। এরপর অবশ্য বেশিক্ষণ খেলা হয়নি। ১৩ ওভার আগে ড্র মেনে নেন দুই অধিনায়ক। ৫ উইকেটে ১০৬ রান করে রাজশাহী। ১৮১ বলে তিন চারে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন জহুরুল। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে গতকাল ৬ উইকেটে ২০৬ রান নিয়ে খেলা শুরু করা ঢাকা গুটিয়ে যায় ২৫৪ রানে।
লড়াকু দু’টি ফিফটির জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন তাইবুর।


আরো সংবাদ

বাবরি মসজিদ পুনর্নির্মাণের দাবি খেলাফত মজলিসের কেরানীগঞ্জের অবৈধ কারখানাগুলোয় র্যাবের টানা অভিযান আজ আয়কর মেলা শুরু খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জন্মদিন পালনের মামলার শুনানি ২৫ নভেম্বর মুন্সীগঞ্জ আ’লীগের সভাপতিসহ কয়েক নেতার বিরুদ্ধে দুদকে অভিযোগ রোহিঙ্গাদের নিয়ে প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ৮০০০ আসামির তালিকা তুলে দেয়া হলো জনপ্রতিনিধিদের হাতে প্রধান বিচারপতিকে মোদির কৃতজ্ঞতাই জানান দেয় রায় পূর্বপরিকল্পিত : সুশীল ফোরাম সিদ্ধিরগঞ্জে মেঘনা তেলের ডিপোতে শ্রমিকদের কর্মবিরতি রাঙ্গা ক্ষমা চাইলেন এবার সংসদে ভূ-কৌশলগত বিরোধ নয় সুষ্ঠু প্রতিযোগিতা চায় বাংলাদেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সকল