১৭ নভেম্বর ২০১৯

পাকিস্তান দলে উসমান কাদির

-

নতুনদের ওপর নির্ভরতার পথ বেছে নিলেন পাকিস্তানের কোচ ও প্রধান নির্বাচক মিসবাহ-উল-হক। তার আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফরের টি-২০ ও টেস্ট দলে নতুন মুখের ছড়াছড়ি। একই সাথে সদ্য বরখাস্ত অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ও সিনিয়র ক্রিকেটার মোহাম্মদ হাফিজকে উপক্ষোর মতো কঠিন সিদ্ধান্তও নিয়েছেন মিসবাহ। অস্ট্রেলিয়া সফরের পাকিস্তানের টি-২০ সিরিজের জন্য ঘোষিত দলের সবচেয়ে বড় চমক কিংবদন্তি স্পিনার ও সদ্য প্রায়ত আব্দুল কাদিরের ছেলে উসমান কাদিরের অন্তর্ভুক্তি। গতকাল আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ে অংশ নিয়ে আসন্ন সিরিজের দল ঘোষণা করেন পাকিস্তান প্রধান নির্বাচক ও কোচ মিসবাহ-উল-হক।
অস্ট্রেলিয়া সফরের দুই ফরম্যাটের দল নির্বাচনে তারুণ্যকে প্রাধান্য দেয়ার পাশাপাশি পরীক্ষিত সিনিয়রদের বেছে নিয়েছে পাকিস্তান। ১৯ বছর বয়সী পেসার মোহাম্মদ মুসা টেস্ট ও টি-২০ স্কোয়ার্ডে জায়গা পেয়েছেন। ২০ ওভারের ফরম্যাটের অন্য দুই নতুন মুখ হিসেবে সুযোগ হয়েছে উসমান কাদির ও মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান খুশদিল শাহ। অন্য দিকে টেস্ট ভার্সনে দলে প্রথমবারের মতো অন্তর্ভুক্তি হয়েছেন কাশিফ ভাট্টি ও ১৬ বছর বয়সী পেসার নাসিম শাহ।
অস্ট্রেলিয়া সফরের দল নির্বাচনে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনাকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে বলে জানান মিসবাহ। তিনি বলেন, ‘আসন্ন সিরিজটি অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং। সবদিক বিবেচনা করেই দল চূড়ান্ত করা হয়েছে। দুই ফরম্যাটে দলভুক্তি নতুন ক্রিকেটারদের সামর্থ্য নিয়ে বিন্দুমাত্র সন্দেহও নেয়। মাঠে পারফরম করার পরই কেবল তাদের সুযোগ দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হয়েছে।’ দুই ফরম্যাট মিলিয়ে মিসবাহর পাঁচজন নতুন মুখের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে কিংবদন্তি লেগ-স্পিনার আব্দুল কাদিরের ছেলে উমসান নিয়ে। পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে চরম ক্ষুব্ধ ২৬ বছর বয়সী স্পিনার কিছু দিন আগে অস্ট্রেলিয়া টি-২০ দলের জার্সিতে আসন্ন বিশ্বকাপে প্রতিনিধিত্ব করার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। সম্প্রতি দেশটির ঘরোয়া ক্রিকেটে নজরকাড়া নৈপুণ্য প্রদর্শনে শিরোনাম দখলে নেন উসমান কাদির।


আরো সংবাদ