১৫ নভেম্বর ২০১৯

টেস্ট স্কোয়াডে যোগ দিতে ইন্দোরে মুমিনুলরা

-

ভারতের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজের শেষ ম্যাচের অপেক্ষা। নাগপুরে ওই ম্যাচ ১০ নভেম্বর। অবশ্য ওই ম্যাচ কেন্দ্র করে উত্তাপ বিরাজ করছে দ্বিতীয় ম্যাচের মতোই। যে জিতবে সিরিজটা যেহেতু তাদেরই। তাই জিততে চাইবে দুই দলই। ভারত যেহেতু রিদম ফিরে পেয়েছে। তাই দেশের মাটিতে এটা হাতছাড়া করতে নারাজ। কিন্তু ছেড়ে দেবে না বাংলাদেশও। দ্বিতীয় ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে নিতে চায় তারা এ ক’দিনে।
এদিকে টি-২০তে এক ম্যাচ জয়ের ফলে টেস্ট সিরিজ নিয়েও বাড়তি উত্তেজনা বিরাজ করছে। বাংলাদেশের তরুণরা কী টেস্টেও ভড়কে দেবে? এ শঙ্কা এখন সর্বত্র। ইন্দোরে ১৪ অক্টোবর শুরু ওই ম্যাচ।
এদিকে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ স্কোয়াডে যারা রয়েছেন, তাদের অনেকেই টি-২০ স্কোয়াডের বাইরে। তার মধ্যে খোদ অধিনায়ক মুমিনুল হকও রয়েছেন। আছেন অভিজ্ঞ ও তরুণ ক্রিকেটারও। গতকালই ভারতের উদ্দেশে রওনা হয়ে গেছেন তারা। গতকাল সকালে স্কোয়াডের ৮ ক্রিকেটার রওনা হয়ে ভারতেও পৌঁছেছেন। এরা হলেন অধিনায়ক মুমিনুল ছাড়াও ইমরুল কায়েস, মেহেদি হাসান মিরাজ, সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাইম হাসান, এবাদত হোসেন ও আবু জায়েদ চৌধুরি রাহী। কলকাতা হয়ে নাগপুর গেছেন তারা।
ইন্দোরে প্রথম টেস্টের পর কলকাতায় ঐতিহাসিক এক ম্যাচ খেলবে তারা। যা হবে পিংক বলে, দিবা-রাতের টেস্টম্যাচ। দুই দলের জন্যই এটা নতুন এক অভিজ্ঞতা। ২২ নভেম্বর থেকে শুরু হবে ওই ম্যাচ। আসলে ইন্দোরের ম্যাচ দিয়ে ভারতের বিপক্ষে যেমন পূর্ণাঙ্গ সিরিজের টেস্টম্যাচ শুরু করবে বাংলাদেশ। তেমনি এটা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেরও অংশ বিশেষ। ফলে এবারের সিরিজটি বাংলাদেশের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এমন এক মুহূর্তে বড্ড প্রয়োজন ছিল সাকিব ও তামিম ইকবালের। কিন্তু সাকিব পারিবারিক কারণে সরে দাঁড়ানোর পর সাকিব আল হাসান পড়েন আইসিসির নিষেধাজ্ঞায়। ফলে নতুন অধিনায়ক মুমিনুল অভিজ্ঞ ও তারুণ্যের সংমিশ্রণে গড়া এক দলের নেতৃত্ব দেবেন।
ভারত সফরে বাংলাদেশের টেস্ট স্কোয়াড : মুমিনুল হক সৌরভ (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিথুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাইজুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, আল আমিন হোসেন, ইমরুল কায়েস, মেহেদি হাসান মিরাজ, সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাইম হাসান, এবাদত হোসেন ও আবু জায়েদ চৌধুরি রাহী।


আরো সংবাদ