২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

গোহত্যার গুজবে সহিংসতায় পুলিশসহ নিহত ২

গোহত্যার গুজবের পর উত্তেজিত জনতার তাণ্ডবে পুড়ে যাওয়া গাড়ি ও মোটরসাইকেল - সংগৃহীত

ভারতের উত্তর প্রদেশে একটি পুলিশ স্টেশনের নিকটবর্তী জঙ্গলের পাশে ২৫টি গরুর দেহাবশেষ পাওয়ার গুজবে সৃষ্ট সহিংসতায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ দুইজন নিহত হয়েছেন।

সোমবার উত্তর প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় বুলন্দশহর জেলায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় আলজাজিরা ও এনডিটিভি।

পুলিশ জানায়, বুলন্দশহরের স্যানা মহকুমা এলাকার মাহু গ্রামের জঙ্গলের পাশে একটি খোলা জায়গায় ২৫টি গরুর দেহাবশেষ পড়ে থাকতে দেখা গেছে বলে গুজব রটার পর স্থানীয়রা বিক্ষোভ শুরু করে। তারা গরুর দেহাবশেষগুলো তুলে নিয়ে সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানাতে শুরু করে।

জেলা হাকিম অনুজ কুমার ঝা জানিয়েছেন, পুলিশ অবরোধ সরাতে গেলে জনতা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। এ সময় তাদের নিক্ষিপ্ত পাথরে পুলিশ পরিদর্শক সুবোধ কুমার সিংসহ কয়েকজন পুলিশ আহত হন।

নিহত পুলিশ পরিদর্শক সুবোধ কুমারের গাড়িচালক রাম আসর জানিয়েছেন, আহত পুলিশ কর্মকর্তাকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার সময় উত্তেজিত জনতা দ্বিতীয়বারের মতো তাদের আক্রমণ করে। জনতা তাদের গাড়ি ঘিরে ফেললে প্রাণ বাঁচাতে তিনি গাড়ি রেখে পালিয়ে যান।

মোবাইলে ধারণ করা একটি ভিডিওর বর্ণনা দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, পরিদর্শক সুবোধ কুমার গাড়ির মধ্যে নিস্তেজ হয়ে পড়ে আছেন, গাড়ির জানালারর কাঁচ ভাঙচুর করা এবং দরজাগুলো খোলা। গুলির শব্দ হচ্ছে, উত্তেজিত জনতা চারপাশে দৌঁড়াদৌঁড়ি করছে আর বলছে ‘গুলি কর’।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে বাম ভুরুর নিচে লাগা গুলির আঘাতে সুবোধ কুমারের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়েছে।

উত্তেজিত জনতা নিহত সুবোধ কুমারের সরকারি পিস্তল ও মোবাইল ফোনটিও নিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রায় একঘন্টা ধরে চলা এ সহিংসতায় স্থানীয় এক ব্যক্তিও নিহত হয়েছেন। উত্তেজিত জনতার নিক্ষিপ্ত পাথরের আঘাতে পাঁচ পুলিশ আহত হয়েছেন। পাশাপাশি তারা একটি পুলিশ স্টেশন ও বেশ কয়েকটি গাড়িও পুড়িয়ে দিয়েছে।


আরো সংবাদ