২৬ জুন ২০১৯

পিছনে বালিশ, পাশে হুক নিয়ে ধ্যান করা মোদীর ছবি ভাইরাল

সমগ্র ভারত প্রহর গুণছে উত্তেজনায়। প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় ধরে দেশটিতে চলছে লোকসভা নির্বাচন। এরই মাঝে, ভোটগ্রহণের শেষ পর্যায়ে এসে, উত্তরাখণ্ডের এক গুহায় গিয়ে ধ্যানে বসে পড়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উত্তরাখণ্ডে দুই দিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কেদারনাথের কাছে একটি পবিত্র গুহায় ধ্যানে নিমগ্ন হয়েছেন।

এর আগে, শনিবার প্রধানমন্ত্রী কেদারনাথ মন্দিরেও প্রার্থনাও জানান। বিকেলে দিল্লিতে ফিরে আসার আগে বদ্রীনাথ মন্দির পরিদর্শন করার কথা আজ।

উত্তরাখণ্ডের বিজেপির টুইটারে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে ৬৮ বছর বয়সে প্রধানমন্ত্রী মোদি পিঠে একটা বালিশ দিয়ে, বিছানায় বসে, ধ্যান করছেন। পরণে গেরুয়া বস্ত্র। আরেকটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর হাত জড়ো করে গুহার মধ্যে প্রবেশ করছেন।

এই সবের আগে, ২০১৩ সালের বন্যায় এই রাজ্য তছনছ হয়ে যাওয়ার পর কেদারনাথ উন্নয়ন প্রকল্প পর্যালোচনাও করেন মোদি। চলতি প্রকল্পের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলার সময় প্রথাগত পাহাড়ি পোশাক পরা প্রধানমন্ত্রীর ছবিও বিজেপির টুইটারে পোস্ট করা হয়েছে।

দেশে ঘটমান সাধারণ নির্বাচনের শেষ পর্বের একদিন আগে প্রধানমন্ত্রীর মন্দির শহর সফর জনমানসে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা বারাণসীতেও এপর্বেই ভোটগ্রহণ। এই আসন থেকে দ্বিতীয়বার জয়ের স্বপ্ন দেখছেন তিনি। নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী বিধি এখনও কার্যকর রয়েছে বলে মনে করিয়ে দিয়েই প্রধানমন্ত্রীর হিমালয় ভ্রমণে সম্মতি জানিয়েছে।

ভোটের এই প্রবল চাপের মাঝেও পাহাড়ি পথের নৈসর্গিক দৃশ্য প্রধানমন্ত্রী মোদি তার ৪৭.৩ মিলিয়ন টুইটার অনুসারীদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে কিন্তু ভোলেননি। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে সড়ক নিরাপত্তাও জোরদার হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী অবশ্য এই প্রথম নয়, শিবের কাছে প্রার্থনা জানাতে এই মন্দির এলাকায় বহুবারই সফর করেছেন তিনি।

রুদ্রপ্রয়াগ জেলার কেদারনাথ মন্দির ছয় মাসের দীর্ঘ শীতকালীন বিরতির পর এই মাসের শুরুতেই আবারও তীর্থযাত্রীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এনডি টিভি।


আরো সংবাদ