১৯ আগস্ট ২০১৯

মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের দেখতে কেন একই রকম?

সমালোচকরা বলছেন, এই বছরের প্রতিযোগিদের দেখতে একই রকম দেখাচ্ছে - সংগৃহীত

মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের ভাগ্য যে বদলে যায় তার উদাহরণ রয়েছে বেশ কিছু। অনেকে বলিউডে তাদের নাম উজ্জ্বল করেছেন। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সুস্মিতা সেন এবং ঐশ্বরিয়া রায় তাদের মধ্যে অন্যতম। তাই অনেকেই এই প্রতিযোগিতায় শেষ অর্থাৎ চূড়ান্ত পর্বে উঠাকে জীবন পরিবর্তনের একটা ক্ষমতা হিসেবে দেখেন।

কিন্তু প্রতিযোগীরা এখন তাদের সাফল্য উপভোগ করার চেয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন। চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণকারীদের কোলাজ করা একটি ছবি নিয়ে সমালোচকরা বলছেন, এই প্রতিযোগিতার আয়োজকরা 'গায়ের রং ফর্সার' প্রতিই বেশি নজর দিয়েছেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া সংবাদপত্র ৩০ জন নারীর মুখের ছবির একটি কোলাজ ছেপেছে। কিন্তু যখন একজন টুইটার ব্যবহারকারী এটি শেয়ার করেন এবং প্রশ্ন রাখেন - 'এই ছবিতে সমস্যাটা কী?' এরপরেই আলোচনা শুরু হতে থাকে।

তাদের শান্ত মুখ, চকচকে ভাব, ঘাড় পর্যন্ত হেলানো চুল এবং গায়ের রং - সব মিলিয়ে মনে হবে কার্যত অভিন্ন। কেউ কেউ বলেছেন, তাদের সবার দেখতে একই রকম দেখাচ্ছে। অন্য আরেকজন মজা করে লিখেছেন, "প্রকৃতপক্ষে সবাই একই ব্যক্তি"।

টুইটারে যখন এই ছবি নিয়ে ঝড় চলছে, তখন সমালোচকরা খুঁজে বের করেছেন - ছবির এইসব নারীদের কোন সমস্যা নেই, সমস্যাটা আসলে আয়োজকদের। তারা শুধুমাত্র ফর্সা রং এর প্রতি জোর দিয়েছেন। সমালোকচরা বলছেন, ভারতের যে 'ফেয়ার এন্ড লাভলি'র প্রতি একটি বাড়তি দুর্বলতা আছে সেটা আরো একবার উঠে আসলো।

বিবিসি এই সব সমালোচনার উত্তর জানতে আয়োজকদের সাথে যোগাযোগ করেছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোন উত্তর পায়নি।

সুন্দরী প্রতিযোগিতা ভারতে ১৯৯০ এর মধ্যভাগ থেকে একটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সাদা চামড়ার প্রতি ভারতের একটা দুর্বলতা রয়েছে, বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে।

১৯৭০ সালে যখন রং ফর্সাকারী ক্রিম 'ফেয়ার এন্ড লাভলী' বাজারে আসলো, তখন থেকে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত কসমেটিকসের মধ্যে একটাতে পরিণত হল এটি। এমনকি বলিউডের নামকরা সব অভিনেতা-অভিনেত্রীকে এই ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন করতে দেখা যায়।

এদিকে যারা এই রং ফর্সাকারী ক্রিম উৎপাদন করছে তারা বলছে, এটা ব্যক্তির একান্ত ব্যক্তিগত পছন্দের ব্যাপার। যদি একজন ঠোট রাঙ্গানোর জন্য লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে রং ফর্সা করার জন্য ক্রিম ব্যবহার করতে সমস্যা কী? সূত্র : বিবিসি।

দেখুন:

আরো সংবাদ