১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

৫ দিনের রিমান্ডে ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম - ফাইল ছবি

আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় গ্রেফতার ভারতের সাবেক কেন্দ্রীয় অর্থ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  পি চিদাম্বরামের বিরুদ্ধে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করে সিবিআই। এ সময় সংস্থাটির পক্ষ থেকে ৫ দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত তা মঞ্জুর করে। এর আগে বুধবার তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পি চিদাম্বরমকে সিবিআই ভবনের লক-আপ স্যুট-৩ তে রাখা হয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি সে সময় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি ছিলেন এবং তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনোমোহন সিংকে সঙ্গে নিয়ে সিবিআই ভবনের লক-আপের সুবিধাগুলো পরিদর্শন করেছিলেন।

বর্তমানে ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার সদস্য চিদাম্বরম অতীতে বিভিন্ন সময় অর্থমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পেনশনবিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। নির্বাচিত হয়েছিলেন নিম্নকক্ষ লোকসভার সদস্য হিসেবেও।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। এরপর পি চিদাম্বরমকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড চায় সিবিআই। পরে আদালত আগামী ২৬ তারিখ পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন। এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন চিদাম্বরমের স্ত্রী নলিনী ও পুত্র কার্তি।

পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন ২০০৭ সালে বিদেশ থেকে ৩০৫ কোটি টাকার তহবিল পাওয়ার জন্য আইএনএক্স মিডিয়াকে ছাড়পত্র দিয়েছিলেন। এর বিনিময়ে ছেলে কার্তি চিদাম্বরমের সংস্থাকে বিরাট অঙ্কের ঘুষ দেয় আইএনএক্স মিডিয়া।

চিদাম্বরম ও তার ছেলের নাম জানিয়েছেন আইএনএক্স-এর যুগ্ম-প্রতিষ্ঠাতা পিটার মুখোপাধ্যায় ও ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায়। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা তাদের মেয়ে শিনা বোরাকে হত্যা করেছেন। এ মুহূর্তে তারা জেলে রয়েছেন। যদিও চিদাম্বরম ও তার ছেলে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে চিদাম্বরমের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। বুধবার সন্ধ্যায় আচমকাই তিনি হাজির হন কংগ্রেসের সদর দফতরে। এর ৯০ মিনিট পরই গ্রেফতার হন তিনি।

এর আগে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমাকে যদি বেছে নিতে বলা হয় জীবন ও স্বাধীনতার মধ্যে থেকে, তাহলে আমি নিঃসংকোচে স্বাধীনতাই বেছে নেব।


আরো সংবাদ