১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কাশ্মির সীমান্তে পাক বাহিনীর গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত

জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানি বাহিনীর গুলিতে রাজীব থাপা নামে ভারতীয় সেনা জওয়ান নিহত নিহত হয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির বাসিন্দা রাজীব থাপা গোর্খা রাইফেলসের জওয়ান ছিলেন।

কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে পাকিস্তানি সেনারা আজ (শুক্রবার) গুলিবর্ষণ করলে ওই সেনা সদস্য নিহত হন।

কর্মকর্তা সূত্রে প্রকাশ, তিনি নৌশেরা সেক্টরে কালসিয়া এলাকায় এক অগ্রবর্তী সেনা চৌকিতে মোতায়েন ছিলেন। আজ ভোরে সীমান্তের ওপার থেকে আসা পাক বাহিনীর গুলিবর্ষণের কবলে পড়েন রাজীব। তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় এক সামরিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তিনি মারা যান।

কর্মকর্তারা বলছেন, ভারতীয় সেনাবাহিনী কার্যকরভাবে পাল্টা জবাব দিয়েছে যদিও তাৎক্ষণিকভাবে পাকিস্তানি বাহিনীর ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে জানা যায়নি।

গত ১৭ অগস্ট থেকে পাকিস্তানি বাহিনী রাজৌরি ও পুঞ্চ জেলায় ছোট অস্ত্রের সাহায্যে গুলিবর্ষণের পাশপাশি মর্টার হামলা চালালে এনিয়ে ভারতীয়পক্ষের চতুর্থ মৃত্যুর ঘটনা ঘটল।

জম্মু-কাশ্মীরে সীমান্তে গত (মঙ্গলবার) কৃষ্ণাঘাঁটি সেক্টরে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন রবিরঞ্জন কুমার সিং (৩৬) নামে ভারতীয় এক সেনা সদস্য। বিহার রাজ্যের বাসিন্দা নিহত ওই জওয়ান সেনাবাহিনীর নায়েক পদে কর্মরত ছিলেন।

এরআগে গত ১৭ আগস্ট পাকিস্তানি বাহিনী রাজৌরি জেলার নৌসেরা সেক্টর সংলগ্ন আউটপোস্ট ও গ্রামগুলোতে গুলিবর্ষণ করলে নিহত হন ল্যান্স নায়েক সন্দীপ থাপা। প্রত্যেক ক্ষেত্রেই ভারতীয় সেনাবাহিনী পাল্টা গুলিবর্ষণের মধ্যদিয়ে কার্যকর ও কঠোর জবাব দিয়েছে।

সূত্র : পার্স টুডে


আরো সংবাদ