২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কাশ্মির ও আসাম নিয়ে জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদের উদ্বেগ

-

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মির ও আসাম পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের প্রধান মিশেল ব্ল্যাচেট। কাশ্মিরের জনগনের অধিকার ও স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যহত হওয়া এবং আসামের এনআরসি নিয়ে তিনি এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন। মানবাধিকার পরিষদের ৪২তম সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তৃতায় তিনি বলেন, ভারত সরকারের সম্প্রতিক পদক্ষেপে কাশ্মিরীদের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে আমি খুবই উদ্বিগ্ন।’

৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপিসরকার। ওই দিনের পর থেকে অচল করে রাখা হয়েছে কাশ্মিরকে। মোবাইল-ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে সেখানকার জনশূন্য রাস্তায় টহল দিচ্ছে সশস্ত্র সেনারা। রাজনৈতিক নেতাসহ কয়েক হাজার মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতো মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

মিশেল ব্ল্যাচেট বলেন, কাশ্মিরে ইন্টারনেট সংযোগ ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা, রাজনৈতিক নেতা ও এক্টিভিস্টদের আটক করাসহ মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে তিনি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। আমি ভারত ও পাকিস্তান সরকারকে মানবাধিকারের প্রতি সম্মান রাখার আহ্বান জানাই। বিশেষ করে ভারতের প্রতি আমি আহ্বান জানাই যেন তারা কাশ্মিরে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা ও কারফিউ তুলে নিয়ে জনগণের মৌলিক সেবা নিশ্চিত করে।’ এছাড়া আটককৃতদের মানবাধিকার নিশ্চিতেরও আহ্বান জানান তিনি।

আসামের নাগরিক তালিকা নিয়ে তিনি বলেন, অবৈধ অভিবাসীদের তাড়িয়ে দেওয়ার এই তালিকা অনেক উদ্বেগ ও দুঃশ্চিন্তার জন্ম দিয়েছে। তালিকা থেকে বাদ পড়া কাউকে যেন আটক কিংবা তাড়িয়ে দেওয়া না হয় এবং কেউ যেন রাষ্ট্রহীন না হয়ে পড়ে সেটা নিশ্চিতে ভারত সরকারকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


আরো সংবাদ