০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

ভয়ানক কাণ্ড! ট্রেনে এক যাত্রীর আঙ্গুল চিবিয়ে খেলেন আরেক যাত্রী

ভীড় ট্রেনে দরজার সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। ফলে অন্য যাত্রীদের ট্রেন উঠতে কিছুটা অসুবিধা হচ্ছিল বটে। সেই থেকেই ঝামেলার শুরু। এক কথা দু’কথায় ঝামেলা বাড়তে থাকে ধীরে ধীরে। ট্রেনের অন্য যাত্রীরা থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। একটা সময় মৌখিক ঝামেলা গড়ায় হাতাহাতিতে। তার পরই ঘটে যায় এক ভয়ানক কাণ্ড। সহযাত্রীর আঙ্গুল কামড়ে খেলে নিলেন আরেক যাত্রী।

৩৪ বছর বয়সী মহেশ পান্ডুরাং ধুমরে উঠেছিলেন ভারতের মুম্বাইয়ের দাদর স্টেশন থেকে। উঠেই কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে কামরার দরজার সামনে দাঁড়িয়ে পড়েছিলেন। তাতে উঠতে-নামতে অসুবিধা হচ্ছিল অন্য যাত্রীদের। ইতিমধ্যে ২৫ বছরের ইউসুখ শেখ ওই কামরায় ওঠেন কুরলা স্টেশন থেকে। কিছুক্ষণের মধ্যেই মহেশের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়ান ইউসুফ।

কথা কাটাকাটির মাঝে মহেশের জামার কলার ধরে টানতে শুরু করেন ইউসুফ। তাতে মহেশের জামার বেশ কয়েকটি বোতামও ছিঁড়ে যায়। ব্যস তাতেই চটে গিয়ে ইউসুফকে গলা ধাক্কা দিতে শুরু করেন মহেশ। এরপরই ইউসুফ তার ডান হাতের তর্জনী কামড়ে দেন। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই মহেশের আঙুলের কিছুটা অংশ ছিঁড়ে চলে যায় ইউসুফের মুখে। এমন নৃশংস ঘটনার আকস্মিকতায় অন্য যাত্রীরা সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন।

আঙুল ছিঁড়েও শান্ত হননি ইউসুফ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এরপর মহেশকে ট্রেন থেকে ধাক্কা মেরে ফেল দেওয়ার চেষ্টাও করেন ইউসুফ। পরে অন্য যাত্রীরা জিআরপিত খবর দেন। থানে স্টেশনে ইউসুফকে গ্রেফতার করে জিআরপি। মহেশকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তার আঙুলে অপারেশন হয়েছে।

জানা গেছে, মহেশের আঙুলের বেশ কিছুটা অংশ কামড়ে ছিঁড়ে নিয়েছিলেন ইউসুফ। জিনিউজ।


আরো সংবাদ