১৭ অক্টোবর ২০১৯

কাশ্মিরে সেনা মোতায়েনের লক্ষ্য ভিন্নমত দমন : মেহবুবা মুফতি

জম্মু-কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি - সংগৃহীত

জম্মু-কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি বলেছেন, পাকিস্তান থেকে কথিত অত্যাসন্ন হামলা মোকাবেলার জন্য কাশ্মিরে সেনা মোতায়েন করেনি বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার। তারা সেনা মোতায়েন করেছে কাশ্মিরের ভিন্নমতকে দমিয়ে রাখতে। অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা এক পোস্টে তিনি এ কথা বলেছেন। মেহবুবা মুফতি গৃহবন্দী হওয়ার পর ওই টুইট অ্যাকাউন্টটির ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন তার মেয়ে ইলতিজা মুফতি।

প্রথম টুইটে তিনি প্রশ্ন রেখেছেন, সব কিছু যদি স্বাভাবিক থাকে তা হলে কাশ্মিরে কেন ৯ লাখ সেনা সদস্য তার ব্যাখ্যা কী? পাকিস্তান থেকে হামলা হবে এ কারণে তারা কাশ্মিরে নন। তারা শুধু কাশ্মিরে অবস্থান করছেন প্রতিবাদ বিক্ষোভকে থামাতে। ভিন্নমত দমন করায় ব্যবহৃত হওয়ার পরিবর্তে সেনাবাহিনীর প্রথম দায়িত্ব হলো সীমান্তকে সুরক্ষিত রাখা। পরের এক টুইটে তিনি যোগ করেন, বিজেপি জওয়ান কার্ড ব্যবহার করছে ও তাদের ভোটাধিকার ছিনতাই করছে। কিন্তু প্রকৃত সত্য হলো, কাশ্মিরিদের যদি কামানের তোপ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, তা হলে কাশ্মিরে অসন্তোষ দমাতে সেনারা দাবার ঘুঁটিতে পরিণত হবেন। জওয়ান অথবা কাশ্মিরিদের প্রতি কোনো তোয়াক্কা করে না ক্ষমতাসীন দল।

মেহবুবা মুফতি কাশ্মিরের পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রধান। তিনি ভারতীয় সংবিধান থেকে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিল করার বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে কথা বলে আসছেন। এ দিকে কাশ্মিরে আটক রাজনীতিবিদদেরকে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে মুক্তি দেয়া শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সূত্র : জি নিউজ।


আরো সংবাদ