২২ নভেম্বর ২০১৯

ছেলে হয়নি, রাগে ভারতে নবজাতক শিশুকন্যাকে জীবন্ত কবর দিয়ে হত্যা

১৭ দিন বয়সী নবজাতক কন্যাসন্তানকে নদীর তীরে জীবন্ত কবর দেয়ার অভিযোগ উঠল স্বয়ং জন্মদাতা বাবার বিরুদ্ধে। শিশু খুনের অভিযোগে পুলিশ ২৯ বছরের ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে। মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুর আথানডামারুথুর গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির যখন ৩ দিন বয়স, তখনও একবার তাকে মেরে ফেলার চেষ্টা করেছিল পেশায় কৃষক ডি ভারাধারাজন। কিন্তু সেসময় আত্মীয়স্বজনের বাধায় সে তা করতে পারেনি। ১৫ মাস আগে ওই যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় সৌন্দর্য নামে এক নারীর। তবে পুদুচেরির জিম্পের হাসপাতালে স্ত্রী কন্যাসন্তানের জন্ম দেয়ায় হতাশ হয়ে যায় ভারাধারাজন।

একপর্যায়ে সোমবার রাত ১২.৩০টা নাগাদ শিশুকে খাইয়ে যখন মা সৌন্দর্য সবে ঘুমিয়েছে, তখন শিশুটিকে তার কোল থেকে চুপিসারে তুলে নিয়ে গিয়ে তাদের বাড়ি থেকে ৫০০ মিটার দূরে থেনপেন্নাই নদীর তীরে নিয়ে যায় বাবা। সেখানে একটি গর্ত খুঁড়ে জীবন্ত শিশুটিকে পুঁতে দেয় সে। ভোর চারটে নাগাদ ঘুম ভাঙার পর সৌন্দর্য মেয়েকে দেখতে না-পেয়ে আতঙ্কে চিৎকার শুরু করেন। চাপাচাপির মুখে অপরাধ স্বীকার করে নেয় তার স্বামী। তড়িঘড়ি আত্মীয়স্বজনেরা পুলিশে খবর দেন। সবাই ছোটে নদীর তীরে। তবে ততক্ষণে সব শেষ।

অভিযুক্ত বাবা পুলিশকে বলেছে, সে সবাইকে বলেছিল তাদের ছেলে হবে। অপ্রত্যাশিতভাবে মেয়ে হওয়ায় সে মেনে নিতে পারেনি। সূত্র : এইসময়।


আরো সংবাদ