২৩ জানুয়ারি ২০২০

২ বছরে শতাধিক ‘এনকাউন্টার’ উত্তর প্রদেশ পুলিশের

-

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর হায়দরাবাদের গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় অভিযুক্তদের পুলিশি ‘এনকাউন্টার’-এ মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে ভারতে যখন তোলপাড় চলছে তখনই উত্তর প্রদেশের পুলিশ জানালো তাদের ‘বীরত্বে’র কথা। রাজ্যটিতে গত দুই বছরে এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে ১০৩ জন।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের কর্মদক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন রাজ্যটির বিরোধী দলীয় নেত্রী মায়াবতী। তার জবাবে পাল্টা ‘হুঙ্কার’ দিল যোগী আদিত্যনাথ সরকারের পুলিশ। আর তাতেই প্রকাশ্যে এসে পড়েছে বিস্ফোরক তথ্য। পুলিশ বলছে, গত দু’বছরে এনকাউন্টারে ১০৩ জন ‘অপরাধী’-কে খতম করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

হায়দরাবাদের এনকাউন্টার নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ভারত। ধর্ষকরা নিহত হওয়ায় কেউ উল্লাস প্রকাশ করছে আবার অন্য দিকে পুলিশ নিজেদের ব্যর্থতা ধামাচাপা দিতেই এনকাউন্টার দিচ্ছে বলে অভিযোগ তুলছে মানবাধিকার সংগঠনগুলি-সহ বিভিন্ন মহল।

এই পরিস্থিতিতেই কার্যত বোমা ফাটিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। শুক্রবার তেলঙ্গানার পুলিশের পাশে দাঁড়িয়ে যোগী সরকারের পুলিশকে খোঁচা দিয়েছিলেন মায়াবতী। তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পুলিশ টুইট করে জানিয়েছে, ‘গত ২ বছরে ৫ হাজার ১৭৮টি এনকাউন্টারে ১০৩ জন অপরাধী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ১ হাজার ৮৫৯ জন। এরা মোটেই সরকারি অতিথি নয়। এই পরিসংখ্যানই প্রমাণ করছে উত্তরপ্রদেশে জঙ্গলরাজ এখন অতীত।’

উত্তরপ্রদেশে অপরাধ জগতের রমরমা নিয়ে অভিযোগ উঠছে বেশ কয়েক দশক ধরেই। ২০১৭-র মার্চে ক্ষমতায় আসার পর উত্তরপ্রদেশ থেকে ‘জঙ্গলরাজ’ শেষ করার ‘পণ’ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মানবাধিকার সংগঠনগুলির অভিযোগ, সেই কাজ করতে গিয়ে নানা অপরাধে অভিযুক্তদের নির্বিচার ভুয়া সংঘর্ষে ‘খুন’ করেছে পুলিশ।  আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ