২৯ জানুয়ারি ২০২০

হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডায় চলছে মোদি সরকার : ইমরান খান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ভারতে নরেন্দ্র মোদির সরকার পরিকল্পিতভাবে হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। বুধবার বিক্ষোভ, প্রতিবাদ উপেক্ষা করে ভারতীয় পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষে নাগরিকত্ব বিল পাস হওয়ার পর ইমরান এই মন্তব্য করেন।

বিলটির ফলে ভারতে ৫ বছর বা বেশি সময় সময় ধরে আছে এমন শরণার্থীরা নাগরিকত্ব পাবে। তবে মুসলমানদের সেই সুবিধা দেয়া হবে না। অন্য কয়েকটি ধর্মের লোকদের দেয়া হয়ে সেই সুবিধা।

দ্য ডনের খবরে বলা হয়েছে,  টুইটারে ব্যক্তিগত ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট থেকে দেয়া এক পোস্টে ইমরান খান লিখেছেন, মোদি সরকারের যুগে ভারত পরিকল্পিতভাবে হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। ভারত অধিকৃত কাশ্মির একীভূতকরণ ও অবরুদ্ধ করে রাখার মাধ্যমে যার শুরু হয়েছে। এরপর তারা আসামে ২০ লাখ ভারতীয় মুসলমানকে নাগরিকত্ব তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে। এরপর এসেছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল।

আরেক টুইটে ইমরান খান লিখেছন, এর সাথে চলছে মুসলমান ও অন্য সংখ্যালঘুদের গণধোলাই।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হুশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, বিশ্বকে অবশ্যই বুঝতে হবে যে, নাৎসী জার্মানির শ্রেষ্ঠত্ববাদী এজেন্ডাই দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ডেকে এনেছে। মোদির হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডা সাথে পরমাণু শক্তিধর পাকিস্তানের প্রতি হুমকি বড় ধরণের রক্তপাতের দিকে নিয়ে যাবে এবং বিশ্বের জন্য ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনবে।

সম্প্রতি ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হয়েছে দেশটির পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে। বিলটি নিয়ে ভারতেও বিতর্ক চলছে। বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ চলছে বিলটির বিরুদ্ধে।


আরো সংবাদ