২৫ মার্চ ২০১৯

সতীনকে হত্যার দায়ে মা-মেয়ে আটক

-

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় মোবাইল ফোনে কথা কাটাকাটির জের ধরে সতীন কর্তৃক অপর সতীনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম মনোয়ারা বেগম। তিনি উপজেলার পাইকরাজ গ্রামের আব্দুল মতিনের দ্বিতীয় স্ত্রী। গত বুধবার রাতে আব্দুল মতিনের বসত বাড়িতে হত্যাকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতের সতীন আব্দুল মতিনের প্রথম স্ত্রী সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আব্দুল মতিন তার দুই স্ত্রী সাহেনা ও মনোয়ারাকে নিয়ে একই বাড়িতে বসবাস করতেন। গত বুধবার রাতে মোবাইল ফোনে কথাকাটাকাটির জের ধরে দুই সতীন সাহেনা ও মনোয়ারার মাঝে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। এরই এক পর্যায়ে সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা মিলে মনোয়ারার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ সময় প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে মনোয়ারাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল জলিল মনোয়ারা বেগমকে হত্যায় জড়িত সন্দেহে সতীন সাহেনা ও তার মেয়ে সুলতানাকে আটকের বিষয়ে নিশ্চিত করে

তিনি বলেন, নিহতের মরদেহ এখনও হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। মামলা দায়ের করা হলে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ

ভয়ঙ্কর অস্ট্রেলিয়ার কাছে ধরাশায়ী পাকিস্তান ব্যর্থ যুবরাজের লড়াই, ওয়াংখেড়েতে উড়ে গেল মুম্বই মন্ত্রিসভায় অভ্যুত্থান চক্রান্ত : বিদায় নিচ্ছেন থেরেসা মে হত্যা মামলায় নূর হোসেনের বান্ধবী নীলাকে জিজ্ঞাসাবাদ উপজেলা নির্বাচনের ফল : বিজয়ী হলেন যারা টাটা মেমোরিয়ালের সাথে মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর আর কে মিশন রোডে দোকানে আগুন বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ৪৫ শতাংশ ভোটার উপস্থিতিই যথেষ্ট : হানিফ কবরস্থানে আলিশান বাড়ি উচ্ছেদে হাইকোর্টের রুল বিআরটিএ পিডিবি ও পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান খিচুড়ির ব্যবস্থা করেও ভোটার আনতে পারছে না ক্ষমতাসীনেরা : রিজভী

সকল