২২ আগস্ট ২০১৯

মাকে খুনের ঘটনায় ছেলের মামলায় পিতা গ্রেফতার

মাকে খুনের ঘটনায় ছেলের মামলায় পিতা গ্রেফতার - নয়া দিগন্ত

সিলেটের গোলাপগঞ্জে স্বামী কর্তৃক স্ত্রী মিনারা বেগমকে (৫২) হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ স্বামী সুন্দর খাঁকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে গোলাপগঞ্জ পৌরসভার রণকেলী নুরুপাড়া গ্রামে নিহতের নিজ বাড়িতে। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে তারেক আহমদ পিতাকে অভিযুক্ত করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে উপজেলার গোলাপগঞ্জ পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের রণকেলী নুরুপাড়া গ্রামের সুন্দর খাঁ এর স্ত্রী মিনারা বেগমের সাথে স্বামী-স্ত্রীর উভয়ের ঝগড়া হয়। পরে একই ঘরে উভয় ঘুমিয়ে পড়েন তারা। ঘটনার দিন রাতে ছেলে তারেক আহমদ বাড়িতে ছিলেন না। এ সুযোগে স্বামী সুন্দর খাঁ স্ত্রী মিনারা বেগমকে হত্যা করে। পরদিন সকাল বেলা স্বামী সুন্দর খাঁ স্থানীয় লোকজনসহ ছেলে তারেক আহমদকে মোবাইল ফোনে জানান, রাতে ঝগড়া করে গভীর রাতে মিনারা বেগম গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। স্থানীয় লোকজন ও ছেলে তারেক আহমদ বাড়িতে আসলে পিতা সুন্দর খাঁর অস্বাভাবিক আচরণে সকলের সন্দেহ হয়। বিষয়টি গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন। একই সময় পুলিশ নিহতের স্বামী সুন্দর খাঁকে আটক করে থানায় নিয়ে গেলে সেখানে স্ত্রীকে হত্যার বিষয় প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে বলে থানা সূত্রে জানা যায়।

এ ব্যপারে নিহতের ছেলে তারেক আহমদ বাদি হয়ে পিতার বিরুদ্ধে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় মামলা নং-২৯ ধারা-৩০২ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান মিজানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি হত্যার বিষয় নিশ্চিত করে এ প্রতিবেদককে জানান, খুনি স্বামী সুন্দর খাঁকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে নিহতের ছেলে বাদি হয়ে পিতার বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 


আরো সংবাদ