২২ আগস্ট ২০১৯

মাদক কারবারি মিল্টন ইয়ারা-ফেন্সিডিল-অস্ত্রসহ আটক

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার ধলার হাওরে নৌকায় মাদক ব্যবসা পরিচালনার দায়ে তৌহিদুজ্জামান ওরফে মিল্টন (৪৮) নামে এক মাদক কারবারিকে ৬০ পিস ইয়াবা ও ৪২ বোতল ফেন্সিডিল ও বিভিন্ন ধরনের দেশী-বিদেশী ধারালো অস্ত্রসহ আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের ধলার হাওর থেকে তার ব্যবহৃত নৌকাটিসহ তাকে আটক করা হয়। আটককৃত মাদক কারবারি মিল্টন উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত আব্দুল হেকিম তালুকদারের ছেলে।

ধর্মপাশা থানার ওসি এজাজুল ইসলাম জানান, উপজেলার মির্জপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিমের ছেলে আটককৃত মিল্টন মিয়া এলাকায় একজন চিহ্নিত মাদককারবারি হিসেবে পরিচিত। মিল্টনের নামে ধর্মপাশা, মোহনগঞ্জসহ বিভিন্ন থানায় একটি হত্যা মামলাসহ মোট ৬টি মামলা রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নিজ এলাকাসহ আশ পাশের বিভিন্ন এলাকায় মদ, গাঁজা, ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্যের কারবার পরিচালনা করে আসছিল।

ওসি আরো জানান, এরই মধ্যে এলাকায় পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকায় মিল্টন বেশ কিছুদিন ধরে তার ব্যবসার কৌশল পরিবর্তন করে এবং তিনি একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকায় করে হাওরের বিভিন্ন স্থানে মাদকদ্রব্যের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিরেন। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের পাশের ধলার হাওরে নৌকায় বসে মাদক বিক্রি করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে ধর্মপাশা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সুজন চন্দ্র সরকারের নেতৃত্বে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে নৌকাসহ মাদককারবারি মিল্টনকে আটক করা হয়।

এসময় তার ওই নৌকা থেকে ৬০ পিস ইয়াবা, ৪৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদকসেবন ও বিক্রির বিভিন্ন সরঞ্জামাদি এবং একটি চাইনিজ তলোয়ার, একটি চাপাতি ও একটি ধারালো ছুরা উদ্ধার করা হয়।


আরো সংবাদ