২২ আগস্ট ২০১৯

নিখোঁজের ৪ দিন পর ঢাকা থেকে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

নিহত ব্যবসায়ী গোপাল চন্দ্র দাস - নয়া দিগন্ত

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা সদরের কাপড় ব্যবসায়ী গোপাল চন্দ্র দাস নিখোঁজের ৪ দিন পর ঢাকায় একটি আবাসিক হোটেল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল ১০টার দিকে নিহতের পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করে বংশাল থানা পুলিশ। নিহত গোপাল চন্দ্র দাস উপজেলার চরহামুয়া গ্রামের মৃত গোপেশ চন্দ্র দাসের ছেলে। তিনি শায়েস্তাগঞ্জ দাউদনগর বাজারে সুমন প্লাজায় ‘বস্ত্র মেলা’ দোকানের মালিক।

এর আগে রোববার সকাল ১০টার দিকে ঢাকার নবাবপুর হোটেল ফারুক এর একটি কক্ষ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। গত ২৬ জুলাই গোপাল দাসের ছেলে সাগর দাস শায়েস্তাগঞ্জ থানায় পিতা নিখোঁজ মর্মে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এর আগে গত ২৫ জুলাই দুপুর ২টায় বাসা থেকে দোকানে ও নবীগঞ্জে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাবেন বলে বের হন ব্যবসায়ী গোপাল চন্দ্র দাস। পরে বিকেল ৩টার দিকে অন্য একজনের মোবাইল নাম্বার থেকে স্ত্রীর কাছে তার মোবাইলটি ভুলে বাসায় রেখে এসেছেন বলে জানান তিনি। পাশাপাশি তার বাসায় আসতে দেরি হবে বলেও স্ত্রীকে জানান তিনি।

এরপর থেকেই তার আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। ওই নাম্বারে ফোন দিলে জনৈক ব্যক্তি জানান- তিনি নারায়ণগঞ্জে বাস থেকে নেমেছেন। তবে কোথায় যাবেন তিনি জানেন না।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি আনিসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি শুনেছি ব্যবসায়ী গোপাল দাস ঢাকার একটি আবাসিক হোটেলে আত্মহত্যা করেছেন।


আরো সংবাদ