১৮ নভেম্বর ২০১৯

এটিএম আজহারের মৃত্যুদণ্ড বহালের প্রতিবাদে জামায়াতের বিক্ষোভ

সিলেট মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেছেন, কোন অপরাধ নয়, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে এবং জামায়াতকে নেতৃত্ব শূন্য করতেই জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলামকে বিচারের নামে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। অথচ এটিএম আজহারের বিরুদ্ধে উত্থাপিত সকল অভিযোগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন, কাল্পনিক ও বানোয়াট।

সরকার তাদের দলীয় লোকদের দ্বারা সাক্ষ্য দিয়ে ফাঁসির দণ্ড হাসিলের মাধ্যমে একে একে শীর্ষ জামায়াত নেতৃবৃন্দকে হত্যা করছে। তারই ধারাবাহিকতায় সরকারের ষড়যন্ত্রের শিকার জননেতা আজহার। বিচার প্রক্রিয়ায় সরকার দলীয় লোকদের দ্বারা আদালতে মিথ্যা সাক্ষ্য প্রদান করিয়েছে। বিচারের নামে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় মাত্র ১৮ বছর বয়সের যুবক এটিএম আজহারের মতো নিরপরাধ মানুষের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের রায় কোন বিবেকবান মানুষ মেনে নিতে পারে না। অবিলম্বে এই অন্যায় রায় বাতিল করে জাতীয় নেতৃবৃন্দকে মুক্তি দিন।

বৃহস্পতিবার জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনালে দেয়া অন্যায় মৃত্যুদণ্ডাদেশের রায় আপীলে বহাল রাখার প্রতিবাদে নগরীর বন্দরবাজার এলাকায় তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল বের করে সিলেট মহানগর জামায়াত। মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত কথা বলেন। মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদ, সহকারী সেক্রেটারী মো. শাহজাহান আলী, জামায়াত নেতা মুফতী আলী হায়দার, মাওলানা আলা উদ্দিন, মাওলানা মুজিবুর রহমান, শফিকুল আলম মফিক, ইঞ্জিনিয়ার শাহজাহান কবির রিপন ও  বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবির সিলেট মহানগর সভাপতি ফরিদ আহমদ প্রমুখ।


আরো সংবাদ