১৬ জুন ২০১৯

ভার্চুয়াল দুনিয়ার সহকারী!

-

বর্তমানে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) নিয়ে গুগলসহ সব বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বহুদিন ধরেই কাজ করছে। আশার খবর হলো অ্যাপলের সিরি,
অ্যামাজনের অ্যালেক্সা ও গুগলের অ্যাসিস্ট্যান্টের মতো ডিজিটাল সহকারী আনছে ফেসবুক। নিত্যনতুন ভার্চুয়াল
সহকারীর খবর নিয়ে লিখেছেন আহমেদ ইফতেখার
সিরি
গাড়ির নিচে ঢুকে মেরামতের কাজ করছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসির বাসিন্দা স্যাম। সাপোর্ট ভেঙে পড়ায় হঠাৎ গাড়ির অনেকটা ঝুলে পড়ে তার ওপর। আশপাশে তখন কেউ নেই। উপায় না দেখে নিজ হাতেই যতটুকু সম্ভব ধরে গাড়িচাপা থেকে রক্ষার চেষ্টা করছিলেন। কাউকে ফোন করে জানাতে পারলে হয়তো উদ্ধার করতে আসত। দুই হাত দিয়ে গাড়ি ধরে আছেন, ফোন বের করার উপায় নেই। হঠাৎ মনে পড়ল ‘সিরি’র কথা। এরপর ভয়েস কমান্ড ব্যবহার করে সিরির মাধ্যমে কল করেন। অল্প সময়ের মধ্যে উদ্ধার করা হয় তাকে।
সিরি হলো অ্যাপলের আইফোনের একটি অ্যাপ। ব্যবহারকারীর ভয়েস নির্দেশনা শনাক্ত করে সে অনুযায়ী এটি কাজ করতে পারে। ২০১১ সালের ৪ অক্টোবর বাজারে আসে আইফোন ৪এস। এই সংস্করণটির সাথেই প্রথম আসে ‘সিরি’। দিনটি কেমন হবে, রোদ-বৃষ্টি হবে কী হবে নাÑ নারী কণ্ঠে জানাবে ‘সিরি’। ভার্চুয়াল এই অ্যাসিস্ট্যান্টটি অল্প সময়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। দেখাদেখি অ্যাপলের প্রতিযোগীরাও এ ধরনের অ্যাসিস্ট্যান্ট আনতে মনোযোগী হয়।
সিরির সাহায্য নিলে ফোনের অপশনে যাওয়ার বা ছুঁয়ে দেয়ার দরকার হয় না। হট ইজ দ্যা ওয়েদার লাইক টুডে? এমন কিছু বললেই আবহাওয়ার খবরাখবর নিয়ে হাজির হবে সিরি। হাঁটার সময় মেসেজ অপশনে গিয়ে এসএমএস টাইপ করা ঝামেলা। ‘ভয়েস টু টেক্সট’ অপশন ব্যবহার করলে কথাগুলোই এসএমএস বা টেক্সট হয়ে যাবে। অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবাটিতে শব্দের বোধগম্য প্রযুক্তি ব্যবহার হয়েছে।
কর্টানা
মাইক্রোসফট অফিস অ্যাপ্লিকেশন যারা ব্যবহার করেছেন, ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট তাদের কাছে একদম অপরিচিত নয়। প্রয়োজনের সময় পর্দার এক কোণায় এরা হুটহাট আসে, পরামর্শ (টিপস) দিয়ে চলে যায়। মাইক্রোসফটের এখনকার সহকারী আরো অনেক আধুনিক ও স্মার্ট। হাল আমলের ব্যবহারকারীদের কথা ভেবেই জন্ম হয়েছে কর্টানার। কার্যকারিতার দিক থেকেও অনেক এগিয়ে। উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে দেখা যায় এ সহকারীকে।
ব্যবহারকারীরা ইংরেজিতে লিখে কিংবা বলে কর্টানার সহযোগিতা নিতে পারেন। সময়মতো দরকারি কাজের কথা মনে করিয়ে দেয়ার দায়িত্বও কর্টানার। রাতে ঘুমের এক দফা হয়ে গেল। হঠাৎ জেগে মনে হলোÑ সকালে ওঠার জন্য অ্যালার্ম দেয়া দরকার। আধঘুমের ওই অবস্থায় মোবাইলের অ্যালার্ম সেটিংসে যাওয়াটা বিরক্তিকর। যদি সেট অ্যালার্ম ফর বলে আওয়াজ করেন, তাহলে অ্যালার্ম সেটিংস ওপেন হবে। সময় ঠিক করে দিলে সকাল সকাল ডেকে দেবে।
মোবাইল ব্যবহারকারীরা সাধারণত অ্যাপ ইনস্টল করেই আবহাওয়ার খবর পান। কর্টানায় বাড়তি অ্যাপ ছাড়াই সহজে এ খবর পাওয়া যাবে। কর্টানা চালু করে ওয়েদার বললেই আপনি যেখানে আছেন, সে এলাকার আবহাওয়ার তথ্য দেখাবে। চাইলে অন্য কোনো এলাকার আবহাওয়া সম্পর্কেও জানা যাবে। চট্টগ্রামে বসে যদি ঢাকার আবহাওয়া জানতে চান, তাহলে কর্টানাকে বলতে হবে ওয়েদার ইন ঢাকা।
এমনকি আপনি কোথাও গিয়ে হারিয়ে গেলে পথ দেখাবে কর্টানা। কিভাবে? গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস) প্রযুক্তি ব্যবহার করে ম্যাপে পথ নির্দেশনার বন্দোবস্ত করা হয়েছে ‘কর্টানা’ অপশনে।
অ্যালেক্সা
‘অ্যালেক্সা’ নামে ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেবা চালু করেছে অনলাইন কেনাকাটার সাইট অ্যামাজন। ‘অ্যামাজন ইকো’ নামে স্মার্ট সাউন্ড ডিভাইসে যোগ হয়েছে ডিজিটাল এই অ্যাসিস্ট্যান্ট। ডিভাইসটি স্মার্টফোনের সাথে যুক্ত হবে ব্লুটুথ কিংবা ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে। এভাবে যুক্ত করার পর সেট থেকে মিউজিক প্লে করা ছাড়াও ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন সুবিধা পাওয়া যাবে।
গোলাকার সিলিন্ডারের মতো ডিভাইসটির নিচের অংশে স্পিকার। এখান থেকেই গান, রেডিও ইত্যাদি শোনা যাবে। উপরের অংশটুকুই মূলত অ্যাসিস্ট্যান্টের কাজ করবে। আশপাশে কেউ কিছু বললে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিভাইসটিতে ইনপুট হবে। আবহাওয়ার খবরাখবর, দিনের বাজার তালিকাসহ ঘরের প্রতিদিনের টুকটাক কাজে সাহায্য করবে অ্যামাজন ইকো।
আপনি নিরিবিলি মনে গান শুনছেন, হঠাৎ ফোন এলো। আপনাকে উঠে গিয়ে ভলিউম কমানোর দরকার নেই। মুখে বললেই নিজ থেকেই সাউন্ড কমে যাবে। পড়তে বসে বানান নিয়ে মাথায় সংশয় দেখা দিলে, ভয়েস কমান্ড দিলেই বানান বলে দেবে।


আরো সংবাদ