২২ নভেম্বর ২০১৯

ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন নাদাল

রাফয়েল নাদাল। - ছবি : এএফপি

টেনিস ক্যারিয়ারে চতুর্থবারের মত ইউএস ওপেন ও ১৯তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের স্বাদ নিলেন স্পেনের তারকা খেলোয়াড় রাফায়েল নাদাল। গতরাতে ইউএস ওপেনের ফাইনালে দ্বিতীয় বাছাই নাদাল ৭-৫, ৬-৩, ৫-৭, ৪-৬ ও ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন পঞ্চম বাছাই রাশিয়ার ডানিল মেদভেদেভকে। ৪ ঘন্টা ৫০ মিনিটের টানটান লড়াই ছিলো ইউএস ওপেনের পুরুষ এককের ফাইনালটি। মাত্র ৪ মিনিটের জন্য ইউএস ওপেনের ফাইনালে সবচেয়ে বেশি স্থায়ী ম্যাচের রেকর্ড স্পর্শ করেনি নাদাল-মেদভেদেভের ফাইনালটি। তারপরও আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে উপস্থিতি প্রায় ২৪হাজার দর্শক দেখলেন উপভোগ্য এক ফাইনাল।

২০১৭ ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন নাদাল। পরের আসরের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেন তিনি। ঐ আসরে শিরোপা জিততে না পারার দুঃখ ঘোচাতে এবারের ইউএস ওপেন বেছে নেন নাদাল। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বলেছিলেন, ‘এবারের শিরোপা জয় করাটা আমার জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। গেল আসরে সেমি থেকে বিদায়টা, কষ্ট দিয়েছে আমাকে।’

শেষ পর্যন্ত নিজের লক্ষ্য পূরণ করেছেন নাদাল। ১৯তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় করলেন তিনি। পুরুষ এককে সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় করা সুইজারল্যান্ডের রজার ফেদেরার থেকে মাত্র একটি শিরোপা পিছিয়ে এখন নাদাল। ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে সবার উপরে আছেন ফেদেরার। আগামী বছরের জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিততে পারলে ফেদেরারকে ছুঁয়ে ফেলবেন নাদাল।

ফাইনাল জয়ের পর নাদাল বলেন, ‘আমার টেনিস ক্যারিয়ারে সবচেয়ে আবেগময় এক রাত এটি। এটি সত্যিই অসাধারন একটি ফাইনাল ছিলো। আর্কষনীয় ফাইনালও ছিলো। দর্শকরা উপভোগ করেছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।’

দুর্দান্ত ফাইনাল খেলার পরও শিরোপা বঞ্চিত হয়েছেন মেদভেদেভ। হতাশাগ্রস্ত মেদভেদেভ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নাদালকে। তিনি বলেন, ‘আমি নাদালকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ১৯টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় অবিশ্বাস্য, ভয়ানক।’

ভাগাভাগি করে শেষ ১২টি ইউএস ওপেনের শিরোপা জয় করলেন সার্বিয়ার নোভাক জকোভিচ, রজার ফেদেরার ও নাদাল। এরমধ্যে চারটি নাদালের।

১৯৭০ সালে ৩৫ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জিতে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার কেন রোজওয়েল। আর এই যুগে ৩৩ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জিতে রেকর্ড বইয়ে নাম তুললেন নাদাল।

পুরুষ এককে সর্বাধিক গ্র্যান্ড স্লাম
১. রজার ফেদেরার (সুইজারল্যান্ড)- ২০
২. রাফায়েল নাদাল (স্পেন)- ১৯
৩. নোভাক জকোভিচ (সার্বিয়া)- ১৬
৪. পিট সাম্প্রাস (যুক্তরাষ্ট্র)- ১৪
৫. রয় এমারসন (অস্ট্রেলিয়া)- ১২


আরো সংবাদ