২১ নভেম্বর ২০১৯

চীনা নয়, লরি থেকে উদ্ধারকৃত লাশ ভিয়েতনামিদের : যুক্তরাজ্য পুলিশ

ব্রিটেনের অ্যাসেক্সে একটি লরি থেকে যে ৩৯ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল তারা সবাই ভিয়েতনামের নাগরিক বলে জানিয়েছে ‍দেশটির পুলিশ। এর আগে লাশ উদ্ধারের পরপরই ধারণা করা হয়েছিল তাদের চীন থেকে নিয়ে আসা হয়। শনিবার (২ নভেম্বর) বিবিসির খবরে এ তথ্য দেয়া হয়। নিহতরা মানবপাচারের শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করে বলেও জানায় তারা। এই ঘটনায় লরির চালককে আটক করে দেশটির পুলিশ।

যুক্তরাজ্য পুলিশের অ্যাসিসটেন্ট চিফ কনস্টেবল টিম স্মিথ বলেন, এখন আমাদের বিশ্বাস তারা ভিয়েতনামের নাগরিক। আমরা ভিয়েতনামের সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছি।

এর আগে লাশগুলো উদ্ধারের পর ভিয়েতনামের বেশ কিছু পরিবার উদ্বেগ জানায়।

শনিবার (২ নভেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, বেশ কয়েকটি ভিয়েতনামি পরিবার তাদের প্রিয়জন হারানোর খবর জানিয়েছে। এর মধ্যে, ফাম থি ত্রা মাই নামে ২৬ বছরের এক তরুণী গত ২২ অক্টোবর রাতে তার কোনো একটি বিদেশি গন্তব্যে যাওয়ার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে জানিয়ে পরিবারের কাছে বার্তা পাঠিয়েছিলেন।

লরিতে ৩১ পুরুষ ও আট নারীর মৃত্যুর কারণ জানতে ময়নাতদন্ত চলছে। এ ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছে লন্ডনে অবস্থিত ভিয়েতনাম দূতাবাস। পাশাপাশি, নিহত সবার পরিচয় যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যম নিশ্চিত হওয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানিয়েছে তারা।

উল্লেখ্য, গত ২৩ অক্টোবর মধ্যরাতে যুক্তরাজ্যের ওয়াটারগ্লেড ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক এলাকায় একটি লরির কন্টেইনার থেকে ৩৯ জনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তারপর প্রাথমিকভাবে সেগুলো চীনা নাগরিকদের লাশ বলে জানিয়েছিল পুলিশ। পরে পূর্ণাঙ্গ তদন্তে সেগুলো ভিয়েতনামিদের লাশ বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। সূত্র : বিবিসি।


আরো সংবাদ

সকল