১২ ডিসেম্বর ২০১৯

ইরান ইস্যুতে মতবিরোধের কারণেই বোল্টনকে বিদায় করেছেন ট্রাম্প

-

ইরান ইস্যুতে মতের অমিল হওয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনে চাকরিচ্যুত করেছেন। মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গ এক রিপোর্টে লিখেছে, ইরানের ওপর অবরোধ প্রত্যাহার নিয়ে দ্বন্দ্বের কারণে বোল্টনকে বিদায় করেছেন ট্রাম্প।

দুই দিন আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটারে লিখেছেন, উত্তর কোরিয়া ও ইরানসহ বেশ কিছু ইস্যুতে বোল্টনের কঠোর অবস্থান ও তা নিয়ে তীব্র মতবিরোধের কারণে জন বোল্টনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। যদিও বোল্টন বলেছেন এর একদিন আগেই তিনি পদত্যাগ পত্র দিয়েছেন।

ব্লুমবার্গের রিপোর্টে বলা হয়েছে, কিছু দিন ধরেই অনেকগুলো পররাষ্ট্র বিষয়ক ইস্যুতে দুজন যে একমত হতে পারছিলেন না সেটি আর গোপন কোন কথা নয়। তবে বোল্টনের বিদায়টির সাথে সরাসরি ইরান ইস্যু জড়িত। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সাথে বৈঠক করে ট্রাম্প ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন।

বিষয়টির সাথে জড়িত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিনিট সূত্রের বরাত দিয়ে ব্লুমবার্গ বলেছে, গত সোমবার ওভাল অফিসে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হলে- এই পরিকল্পনার বিরুদ্ধে জোড়ালো প্রতিবাদ করেছেন বোল্টন।

কিন্তু অর্থমন্ত্রী স্টিভেন নুশিন ট্রাম্পের মতের প্রতি সমর্থন দিলে ট্রাম্প সেদিনই বোল্টনকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেন।

চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে নিউ ইয়র্কে জাতিসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনের সময় ট্রাম্পের সাথে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির বৈঠকের বিষয়ে আলোচনা চলছে।

বোল্টন সব সময়ই তেহরানের প্রতি আগ্রাসী মানসিকতা পোষণ করতেন বলে জানা গেছে বিভিন্ন সময়। এমনকি ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি ধ্বংস করতে হামলা চালানোর প্রস্তাবও দিয়েছিলেন তিনি।


আরো সংবাদ